Our’anic Sciences and Islamic Studies (QSIS)

About the Department of QSIS


জ্ঞানার্জন ফরজ । জ্ঞান-বিজ্ঞানের মূল উৎসই হল আল-কুর’আন । আধুনিক বিজ্ঞানের সাথে কুর’আনের কোন সংঘাত নেই; বরং আল-কুর’আনই আধুনিক জ্ঞান-বিজ্ঞানের পথপ্রদর্শক । ইলম তথা জ্ঞান-বিজ্ঞান শব্দটি পবিত্র কুর’আনে ৭৭৯ বারের বেশি এসেছে । তাই বিজ্ঞানের যত উৎকর্ষ সাধিত হচ্ছে , ততই আল-কুর’আনের অলৌকিকতা প্রস্ফুটিত ও প্রমান হচ্ছে । এ শাস্বত সত্যটি অনেক Orientalist – এর গবেষণায় ও প্রতিফলিত হয়েছে । মহাবিশ্বের মহাবিস্ময় মহা গ্রন্থ আল-কুর’আনকে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির উৎকর্ষতার যুগে ব্যাপক ভিত্তিক গবেষণার লক্ষ্যে আন্তর্জাতিক ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রাম-এ কুর’আনিক সায়েন্সেস এন্ড ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগ প্রতিষ্ঠিত হয়েছে । কুর’আন গবেষণায় আত্মনিয়োগ করার প্রতি উৎসাহ দিয়ে স্বয়ং আল্লাহ তায়ালা বলেন; “ তারা কুর’আন নিয়ে চিন্তা গবেষণা করেনা ? নাকি তাদের মনের দুয়ারে তালা দেয়া আছে ” ( সুরা মুহাম্মদঃ ২৪ ) । এ বিভাগ এমন একদল কুর’আন গবেষক তৈরি করতে চায়, যারা আল-কুর’আনের জ্ঞানে দক্ষতার্জনের পাশাপাশি আধুনিক জ্ঞান-বিজ্ঞানের বিভিন্ন শাখায় অবাধ বিচরণে সক্ষম হবে এবং এ দু’য়ের মাঝে সমন্বয় সাধনের যোগ্যতা অর্জন করবে । এ মহৎ কাজ নারী পুরুষ সমন্বিতভাবে পালন করলেই কেবলমাত্র কাঙ্খিত লক্ষ্য অর্জন সম্ভব । তাই এই বিভাগ সম্পূর্ণ আলাদা ক্যাম্পাসে ছাত্র-ছাত্রীদের অনার্স ও মাস্টার্স প্রোগ্রাম সুচারুরূপে প্ররিচালনা করে আসছে ।ইনশাআল্লাহ্‌ , এই বিভাগ শতাব্দীর চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় মুসলিম উম্মাহকে বুদ্ধিভিত্তিক দিক নির্দেশনা প্রদানে সক্ষম হবে ।

QSIS বিভাগেরবৈশিষ্ট্যসমূহ

  • ইসলামী ও আধুনিক জ্ঞানর সুন্দর সমন্বয় ।
  • বিশ্বেরখ্যাত নামা বিশ্ববিদ্যালয় সমূহের সিলেবাসের আলোকে প্রণীত যুগোপযোগী সিলেবাস ।
  • ইংরেজি ও কম্পিউটার শিক্ষা বাধ্যতামূলক ।
  • বিভাগের নিজেস্ব ল্যাবরেটরিতে কম্পিউটার প্রশিক্ষণের সু্যোগ ।
  • সাংস্কৃতিক ক্লাব ও সোসাইটির মাধ্যমে মেধা এবং সুপ্ত প্রতিভা বিকাশের সুযোগ ।
  • বিদেশে উচ্চশিক্ষা প্রাপ্ত দেশী ও বিদেশী শিক্ষকবৃন্দের আন্তরিকতা পূর্ণ তত্ত্বাবধানে পড়াশুনার পরিবেশ ।
  • রাজনৈতিক কোলাহলমুক্ত ক্যাম্পাস ।
  • আরবি ভাষার মাধ্যমে আরবি পরিবেশে লেখাপড়ার সুযোগ ।
  • আরবিতে দুর্বল ছাত্র/ছাত্রীদের জন্য বিদেশে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত শিক্ষকদের তত্ত্বাবধানে আধুনিক পদ্ধতিতে স্বল্পসময়ে আরবি ভাষায় পারদর্শিতা অর্জনের ব্যবস্থা ।
  • মেধাবী ছাত্র/ছাত্রীদের জন্য উচ্চ শিক্ষার্থে স্কলারশিপ সহ বিদেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নের সুযোগ ।
  • আধুনিক ও উন্নতমানের শিক্ষা পদ্ধতির মাধ্যমে পাঠদান ।
  • আরব-অনারব তথা চীন, মিশর, আলজেরিয়া, সোমালিয়া, শ্রীলংকা, মায়ানমার, নাইজেরিয়া ও নেপালসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ছাত্র-ছাত্রীদের সাথে অধ্যয়নের বিশেষ সুযোগ ।